বাড়ির কথা….রাস্তায় ঘুমানোর প্রস্তুতি নেন: ইশরাক

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার জন্য দলের নেতাকর্মীদের বাড়ির কথা ভুলে, কাঁথা-বালিশ নিয়ে রাস্তায় স্থায়ীভাবে ঘুমানোর প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

ইশরাক বলেন, বর্তমান সরকার আইনের ধারা দেখাচ্ছে। বিভিন্ন অজুহাত দেখাচ্ছে। আপনারা সবাই জানেন এগুলো কিছুই না, শুধুমাত্র অজুহাত। শীর্ষ সন্ত্রাসী, বহু খুনের ফাঁসির আসামিকে রাতের আঁধারে ঢাকা সেন্ট্রাল জেল থেকে পাহারা দিয়ে দেশের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়। যখন শীর্ষ সন্ত্রাসী ফাঁসির আসামিকে দণ্ড মওকুফ করে দেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট, তখন কোনো আইন দেখা হয় না।

তিনি বলেন, আমরা আমাদের নেত্রীর সুচিকিৎসার জন্য যে আন্দোলন করছি, সেটার ফল পেতে চাই। আপনারা কাঁথা-বালিশ নিয়ে তৈরি হন, বাড়ির কথা ভুলে যান, রাস্তায় স্থায়ীভাবে ঘুমানোর প্রস্তুতি নিন।

সরকারের উদ্দেশে ইশরাক বলেন, আপনারা দেশকে অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিয়েন না। এখনো সময় আছে, দয়া করে সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার সুযোগ করে দেন।

বিএনপি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহবায়ক আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমান, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামা ওবায়েদ, প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, সহ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম, উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল ইসলাম, দক্ষিণ বিএনপির সদস্য, সচিব রফিকুল আলম মজনু, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল, কৃষকদলের আহ্বায়ক হাসান জাফির তুহিন প্রমুখ।