বাইডেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনকে ‘খুনি’ বলে মন্তব্য করেছেন

75

ইট মারলে পাটকেল খেতে হয়- বহুপুরোনো এই বাংলা প্রবাদ খেটে যাচ্ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ক্ষেত্রে। সম্প্রতি এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ‘খুনি’ বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি। পাল্টা জবাব দিতে দেরি করেননি রুশ নেতা। যা বলেছেন তার অর্থ অনেকটা এমন- ‘রতনে রতন চেনে’, অর্থাৎ পরোক্ষভাবে বাইডেনকেই খুনি বলে খোটা দিয়েছেন তিনি। খবর রয়টার্সের।

গত বুধবার এবিসি নিউজের সাক্ষাৎকারে পুতিন প্রসঙ্গে বাইডেন বলেছিলেন, বিদেশি নেতাদের সঙ্গে কাজ করতে গেলে আমার অভিজ্ঞতায় সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো- তাদের সম্পর্কে ভালোভাবে জানা। আমি অন্যদের তুলনায় তাকে (পুতিন) বেশি ভালো জানি।

রুশ প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে নানা সময় বিরোধীদের হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বাইডেনের কাছে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তিনি পুতিনকে খুনি বলে মনে করেন কিনা। জবাবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমি মনে করি।’

তার ওই মন্তব্যের জবাবে বৃহস্পতিবার পুতিন বলেছেন, রতনে রতন চেনে।

ভিডিও কনফারেন্সে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি বলেন, আমার মনে আছে, শৈশবে যখন আমরা মাঠে তর্ক করতাম, তখন বলতাম: যে বলেছে, সে-ই করেছে। এটা কোনও কাকতালীয় ঘটনা, শিশুতোষ মন্তব্য কিংবা রসিকতা নয়। এর মনোস্তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা অনেক গভীর।

বাইডেনকে খোঁচা দিয়ে পুতিন বলেন, আমরা সবসময় নিজের বৈশিষ্ট্যগুলোই অন্যদের মধ্যে দেখতে পাই এবং মনে করি, আমরা আসলে যেমন তারা তেমনই। এভাবেই আমরা (অন্যের) কার্যকলাপ মূল্যায়ন করি।

এরপর তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাস সম্পর্কে কথা বলেন। স্থানীয় আমেরিকানদের ওপর গণহত্যা, দাসত্ব ও কৃষ্ণাঙ্গদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষদিকে জাপানে পারমাণবিক বোমা ফেলার কথা উল্লেখ করেন পুতিন।

তিনি বলেন, তারা ভাবেন, আমরা তাদের মতো। কিন্তু আমরা আলাদা। আমাদের জিনগত ও সাংস্কৃতিক নৈতিক ভিত্তি আলাদা।

পুতিন বলেন, আমরা যেসব ক্ষেত্র নিজের জন্য সুবিধাজনক বলে মনে করব, সেসব ক্ষেত্রে তাদের সঙ্গে কাজ করব। আমাদের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা, আমাদের নিষেধাজ্ঞা এবং আমাদের অপমানের বিষয়গুলো তাদের মোকাবিলা করতে হবে।

রুশ প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, তিনি (বাইডেন) যেমন বলেছিলেন, আমরা একে অপরকে ব্যক্তিগতভাবে জানি। আমি তাকে কী উত্তর দেব? আমি বলব, আমি আপনার সুস্বাস্থ্য কামনা করি।