রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া টাকা ফিরিয়ে দিলেন ছাত্রলীগ নেতা

84

মুন্সিগঞ্জে রাস্তায় এক লাখ ২৫ হাজার টাকা কুড়িয়ে পেয়েছিলেন জেলা ছাত্রলীগের পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক সৌরভ আহম্মেদ। সেই টাকা ছয়দিন পর প্রকৃত মালিককে খুঁজে বের করে ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি।

রোববার (১৮ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে টাকার মালিক জামলা শেখকে ফিরিয়ে দেন এই ছাত্রলীগ নেতা।

টাকার মালিক ও ছাত্রলীগ নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বিদেশে থাকা ছেলেকে পাঠাতে গত সোমবার (১২ এপ্রিল) শ্যালকের কাছ থেকে ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা থেকে ঋণ নিয়ে সদর উপজেলার বজ্রযোগিনী মদিনাবাজার থেকে ব্যাটারিচালিত রিকশায় (স্থানীয় ভাষায় মিশুক) করে করে টঙ্গীবাড়ী আনন্দবাজার এলাকায় যাচ্ছিলেন জামাল শেখ ও তার স্ত্রী। এসময় জামাল শেখের স্ত্রীর কাছে থাকা টাকার ব্যাগটি মদিনাবাজার এলাকায় অসাবধানতাবশত পড়ে যায়। টঙ্গীবাড়ী আলদিবাজার এলাকায় যাওয়ার পর তারা বিষয়টি টের পান। তবে এসময় তারা খোঁজাখুঁজি শুরু করেও ব্যাগের হদিস আর পাননি।

ছাত্রলীগ নেতা সৌরভ আহম্মেদ জানান, সোমবার সন্ধ্যায় মদিনাবাজার রাস্তার পাশে একটি ব্যাগ দেখতে পান। ব্যাগটি খুলতেই ভেতরে এক হাজার টাকার ১০০টি নোট-সম্বলিত বান্ডেল ও আরেকটি ৫০০ টাকার বান্ডেল দেখতে পান। পরে টাকা গুনে সেখানে এক লাখ ২৫ হাজার টাকা রয়েছে বলে নিশ্চিত হন। এর পরপরই সে রাতে তার ফেসবুক আইডি থেকে একটি স্ট্যাটাস দেন। ফেসবুক স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে জামাল শেখের এলাকার জনৈক আরিফের সহায়তায় গতকাল রোববার (১৮ এপ্রিল) রাতে পুরোপুরি নিশ্চিত হয়ে সেই টাকা তাদের কাছে বুঝিয়ে দেন।

টাকার মালিক জামাল শেখ বলেন, ‘প্রতিটি মানুষের ভালো এবং খারাপ দিক দুটোই আছে। ছাত্রলীগের নামে অনেক বদনাম শুনেছি। তবে আজ মনে হলো ছাত্রলীগের কর্মীরা আসলেই খুব ভালো ও পরোপকারী। আমি এই পবিত্র রমজান মাসে তার জন্য মন থেকে আল্লাহর কাছে দোয়া করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘টাকাগুলো না পেলে বিদেশে আমার ছেলেকে কষ্টে থাকতে হতো। তার কাগজপত্র ঠিক করার জন্য সে আমাদের কাছে টাকা চেয়েছিল। পরে শ্যালকের কাছ থেকে ঋণ করে টাকাগুলো আনি। টাকা না পেলে সে-ও সমস্যাও পড়ত, আর আমাদেরও ঋণ টানতে হতো।’