মামুনুলের কথিত দ্বিতীয় স্ত্রীর বাবাকে বহিষ্কার

30

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের কথিত দ্বিতীয় স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণার বাবা ওলিয়ার রহমানকে সংগঠন থেকে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ।

বুধবার (২১ এপ্রিল) বিকেলে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়!

জান্নাত আরা ঝর্ণার বাবা ওলিয়ার রহমান একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সাবেক সেনাসদস্য। তিনি গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো.মোনায়েম খান বলেন, ওলিয়ার রহমানকে কেন দল থেকে বহিষ্কার করা হবে না, জানতে চেয়ে গত ১২ এপ্রিল কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়। ওই নোটিশে সাত দিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছিল। ১৯ এপ্রিল সেই সময়সীমা পার হয়। তাই গতকাল (২০ এপ্রিল) ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের এক নির্বাহী সভায় ওলিয়ারকে দল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, ওলিয়ারের মধ্যে কখনো অন্য কোনো রাজনৈতিক দলে সম্পৃক্ততার প্রমাণ আমরা পাইনি। কিন্তু একজন সভাপতির পরিবারের সদস্যরা ভিন্ন আদর্শের হলে দলের গোপন তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। এজন্য তাকে দল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়েছে। এছাড়া তার কারণ দর্শানোর জবাব দলের হাতে পৌঁছায়নি।

গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোনায়েম ও সাধারণ সম্পাদক মো. ফরিদউদ্দিনের সই করা সেই কারণ দর্শানোর নোটিশে বলা হয়, ওলিয়ারের মেজ মেয়ে জান্নাত আরা ঝর্ণার কথিত স্বামী মামুনুল হক ‘উগ্রপন্থী’ ইসলামী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত। আর তার স্ত্রী জামায়াতপন্থী।

মোবাইল ফোন ব্যবহার না করায় এ ব্যাপারে ওলিয়ার রহমানের বক্তব্য পাওয়ায় যায়নি।

তবে তার স্ত্রী শিউলী বেগম বলেন, ‘আমরা আওয়ামী লীগ পরিবারের সদস্য। তিনি (ওলিয়ার) একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা। তাকে নিয়ে সন্দেহ করার সুযোগ নেই।’