২২ জনের শরীরে করোনা ছড়িয়ে অবশেষে তিনি জেলে

59

ইউরোপের দেশ স্পেনে ২২ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে দেওয়ার পর এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বিবিসি জানিয়েছে, ৪০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির সর্দি-কাশি হওয়া ও শরীরের তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপর চলে গেলেও তিনি নিয়মিত তার কর্মস্থলে যেতেন।

মাজোরকা অঞ্চলে তিনি নিজের কর্মস্থলের চারপাশে হাঁটাহাঁটি করতেন। আর সহকর্মীদের দেখলেই মুখ থেকে মাস্ক নামিয়ে হাঁচি-কাশি ও থু থু নিক্ষেপ করে বলতেন, ‘আপনার গায়ে করোনা ছড়িয়ে দিলাম’। 

কর্মস্থলে তার পাঁচ সহকর্মী ও তার সঙ্গে জিমে যাওয়া চারজন কোভিড-১৯ রোগে পজিটিভ হয়েছেন।

বাকি ১৪ জন হলেন তার পরিবারের সদস্যরা। তার সংস্পর্শে তিনটি এক বছর বয়সী শিশুও আক্রান্ত হয়েছে।

শনিবার (২৪ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে স্পেনিশ পুলিশ জানায়, বেশ কয়েকদিন আগেই ওই ব্যক্তির শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা গেছে। কিন্তু নিজের কর্মস্থল থেকে বাড়িতে ফিরে যেতে চাইতেন না।

এক সন্ধ্যায় তার পিসিআর পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু তার পরীক্ষার ফল আসার আগেই তিনি কর্মস্থল ও জিমে গিয়েছেন। কোনো সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখারও থোরাই কেয়ার করেননি।

তার সহকর্মীরা তাকে বাড়ি যেতে চাপ দিলে তিনি মুখ থেকে মাস্ক নামিয়ে হাঁচি-কাশি দিয়ে দিয়ে বলতেন, ‘আপনাকেও আমি করোনা ছড়িয়ে দিলাম।’

তার করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসার পর সবাই উদ্বিগ্ন হয়ে ওঠেন।