জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বির্নিমাণে কাজ করে যুবলীগ

38

বাঙালি জাতীয়তাবাদ, ধর্মনিরপেক্ষতা,গণতান্ত্রিক চর্চার মতাদর্শ নিয়ে গড়ে উঠা বাংলাদেশের প্রথম যুব সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ ১৯৭২ সালের ১১ ই নভেম্বর প্রতিষ্ঠিত হয়। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশেই এদেশের যুব আন্দোলনের পথিকৃৎ শহীদ শেখ ফজলুল হক মনি সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন।

শেখ ফজলুল হক মনি। জন্মঃ৪ঠা ডিসেম্বর, ১৯৩৯। একাধারে ছিলেন একজন রাজনীতিবিদ, লেখক ও সাংবাদিক। মহান মুক্তিযুদ্ধে রয়েছে যার অসামান্য অবদান। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অন্যতম প্রধান গেরিলা বাহিনী ‘ মুজিব বাহিনীর ‘ নেতৃত্ব দিয়েছেন খুব বিচক্ষণতার সহিত একজন শেখ ফজলুল হক মনি।

যেই লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে যুবলীগের পথচলা সেই লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্যই দেশ স্বাধীন হওয়ার পর দেশের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের মধ্য থেকে স্বাধীনতা ও প্রগতিকামী যুবক ও যুব মহিলাদের ঐক্যবদ্ধ করে তাদের রাজনৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে একটি সুশৃঙ্খল সংগঠন নিয়েই যাত্রাপথ একজন শেখ ফজলুল হক মনির।

যুদ্ধবিধ্বস্ত ধ্বংস স্তূপের ওপর দাঁড়িয়ে থাকা একটি দেশকে পুর্ননির্মাণে আত্মনিয়োগ করেন শেখ ফজলুল হক মনি ও সংগঠনের সকল নেতাকর্মী।

ইতিবাচক ধারায় যেই সংগঠনের পথচলা ১৯৭৫ সালের ১৫ ই আগস্ট সেই সংগঠনের অগযাত্রাকে রুদ্ধ করে এদেশের স্বাধীনতার ঘোর বিরোধী চক্র।হত্যা করা হয় বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের অধিকাংশ সদস্যদের। সেই সাথে নির্মমভাবে হত্যার শিকার হোন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মনি ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী আরজু মনি।পৃথিবীর ইতিহাসের নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার শেখ ফজলুল হক মনির উত্তরসূরী শেখ ফজলে শামস পরশ সেদিন বেঁচে যান ভাগ্যক্রমে ঘাতকদের হাত থেকে।যিনি বর্তমানে তার পিতার দেখানো পথ ও স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

যুবলীগ যেই ভিত্তি নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সেই কাঠামোকে শক্তিশালী করা ও সকল যুব আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া একমাত্র সংগঠন যুবলীগকে যুবকদের হৃদয়ে আজীবন রাখতে এবং যেই কোন সংকটে যুবলীগকে মানুষের পাশে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে প্রচেষ্ঠা অব্যাহত রেখেছেন তিনি।

পাশাপাশি সংগঠনটির সুশৃঙ্খল নেতৃত্ব দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক,যুব প্রজন্মের আইকন,ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সাবেক সফল সভাপতি মাইনুল হোসেন খান নিখিল। বর্তমান চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদকের বিচক্ষণ নেতৃত্বে দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ।

তাদের নির্দেশক্রমেই বৈশ্বিক এই মহামারী করোনা মোকাবেলায় জন মানুষের পাশে মানবতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে পাশে এসে দাড়িয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ।

দেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের পাশে দাড়াতে ধান কেটে ঘরে তুলে দেওয়ার দায়িত্ব নিয়েছে যুবলীগ।জাতীয় শহীদ মিনার ও যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে প্রতিদিন ১৫০০ ছিন্নমূল মানুষের মধ্যে ইফতার বিতরণ করছে সংগঠনটি। দেশব্যাপী দুঃস্থ, অসহায় মানুষের মাঝে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ও ঢাকার ছিন্নমূল অসহায় মানুষের মাঝে মাসব্যাপী ইফতার ও সেহেরির ব্যবস্থাসহ সকল মানবিক কাজে অংশগ্রহণ করে একমাত্র এগিয়ে থাকা সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ।

জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বির্নিমাণে নিরলসভাবে কাজ করে যাবে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ ও সকল মানবিক কাজে অংশগ্রহণের ধারাবাহিকতাই বহমান থাকবে সংগঠনটির এমনটাই প্রত্যাশায় কাম্য।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।

লেখক: মো: মহিউদ্দিন, সাবেক সহ-সভাপতি, ঢা.ম.দ ছাত্রলীগ ও সাবেক সহ-সম্পাদক, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ।