অনলাইনে জুয়াড়ী এজেন্টসহ গ্রেফতার ০৪

110

ভার্চুয়াল কারেন্সী ব্যবহার করে ক্যাসিনো প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে অনলাইন জুয়া ব্যবসা পরিচালনার অভিযোগে ০৪ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি)।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- মোঃ শাহিনুর রহমান (২৬), দীপ্ত রায় প্রান্ত (২৫), মোঃ গোলাম মোস্তফা (২৬) ও মোঃ রাকিবুল হাসান (২৭)।

১০ মে ২০২১ (সোমবার) ১৮.৩০ টায় রাজধানীর খিলক্ষেত থানার নিকুঞ্জ এলাকা হতে তাদেরকে গ্রেফতার করেছে সিটিটিসির ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম বিভাগের ইকোনমিক ক্রাইম এন্ড হিউম্যান ট্রাফিকিং টিম।

এসময় তাদের হেফাজত হতে অনলাইন জুয়ায় ব্যবহৃত ল্যাপটপ, আইপ্যাড, একাধিক স্মার্ট ফোন, হার্ডডিস্ক, পাসপোর্ট এবং জাতীয় পরিচয়পত্র উদ্ধার করা হয়।

ইকোনমিক ক্রাইম এন্ড হিউম্যান ট্রাফিকিং টিমের সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, গোপন সূত্রে জানা যায়, একটি সংঘবদ্ধ দেশী ও বিদেশী প্রতারকচক্র বিভিন্ন প্রকার ভার্চুয়াল কারেন্সী এবং পেমেন্ট গেটওয়ে (যেমন- Perfect money, melbet, movcash(1xbet) Ges Linebet) ব্যবহার করে অনলাইন জুয়া পরিচালনা করছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে নিকুঞ্জ এলাকায় অভিযান করে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত প্রত্যেকেই বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যয়নরত ছাত্র।
তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃত শাহিনুর ক্যাসিনো প্লাটফর্মের বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইন জুয়া পরিচালনাসহ অর্থ লেনদেন করে এবং পেমেন্ট গেটওয়ে melbet ও Linebet এর সরাসরি এজেন্ট। গ্রেফতারকৃত দীপ্ত রায়, মোস্তফা ও রাকিবুল movcash(1xbet) এর মাধ্যমে অনলাইন জুয়া পরিচালনা করতো।

প্রাথমিক জিজ্ঞাবাবাদে প্রাপ্ত তথ্য সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, গ্রেফতারকৃতরা অনলাইনে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে অবৈধ জুয়া পরিচালনার ভার্চুয়াল কারেন্সী আদান-প্রদান এবং ডিপোজিট-এনক্যাশ করতো। এরুপ অবৈধ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য তারা দেশ বিদেশের বিভিন্ন এজেন্টের নিকট হতে কারেন্সী সংগ্রহ করে এবং দেশব্যাপী অনলাইন জুয়াড়িদের সরবরাহ করতেন। তাদের গ্রাহকদের সাথে এই কারেন্সী বিক্রয় এবং এনক্যাশের জন্য জয়পুরহাটের আক্কেলপুর, টাংগাইল এবং ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকার বিকাশ,নগদ ও রকেট এজেন্ট নম্বর ব্যবহার করতো।

ভার্চুয়াল কারেন্সী ব্যবহার করে ক্যাসিনো প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে অনলাইন জুয়া ব্যবসা পরিচালনার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে খিলক্ষেত থানায় মামলা রুজু হয়েছে মর্মে পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান।

গ্রেফতারকৃতদের ১০ দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদনসহ বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।