সোনু সুদ অক্সিজেন প্ল্যান্ট বসানোর উদ্যোগ নিয়েছে

95

অভিনেতা সোনু সুদের দাতব্য কাজের খবর সারা ভারত ছড়িয়ে গেছে। ভারতের কোথাও সোনুর ভাস্কর্য গড়ে তোলা হচ্ছে, আবার কোথাও তাঁর নামে রাখা হচ্ছে নবজাতকের নাম। চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহের ঘটনা। মাঝরাতে হাসপাতাল থেকে আসে জরুরি ফোন। অক্সিজেন না পেলে ২২ জন রোগী নিশ্চিত মারা যাবেন। বলিউড অভিনেতা সোনু সুদের লোকেরা ছিলেন তৎপর। কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর ওই হাসপাতালে ১৫টি অক্সিজেন সিলিন্ডার পাঠিয়ে দেন তাঁরা। অক্সিজেন পেয়ে বেঁচে যান ২২ জন করোনা রোগী। এবার তিনি শুধু অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহ নয়, অক্সিজেন প্ল্যান্ট আনছেন ফ্রান্স থেকে।

ভারতে এখনো অক্সিজেনের সংকট। অক্সিজেনের অভাবে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের প্রাণ যাচ্ছে। গত সপ্তাহের কথা। মাত্র ৫ মিনিটের জন্য অক্সিজেন ছিল না। তাতে ১১ জন কোভিড রোগীর মৃত্যু হয় তিরুপতির শ্রীভেঙ্কটেশ্বর রামনারায়ণ রুইয়া সরকারি হাসপাতালে। একই চিত্র দেশের আরও বিভিন্ন জায়গায়। করোনা রোগীদের জন্য দেশে অক্সিজেন সরবরাহ করতে উদ্যোগ নিলেন অভিনেতা সোনু সুদ। জানা গেছে, ফ্রান্স থেকে অক্সিজেন প্ল্যান্ট আনার উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।


সোনু সুদের পক্ষে দেওয়া এক বিবৃতিতে জানা গেছে, শুরুতে অন্তত ৪টি প্ল্যান্ট আনা হবে। মহারাষ্ট্র ও দিল্লির মতো সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্যগুলোতে বসানো হবে এই প্ল্যান্ট। প্রথম প্ল্যান্ট ১০-১২ দিনের মধ্যেই  ভারতে ঢুকবে। এক বিবৃতিতে সোনু সুদ বলেছেন, ‘এখন সবচেয়ে দামি “সময়”। আমি এবং আমার দল মিলে খুব চেষ্টা করছি যাতে অক্সিজেন প্ল্যান্টগুলো তাড়াতাড়ি এ দেশে পৌঁছায়। আর কত মানুষ মরবে!’
সোনু সুদ জানিয়েছেন, এই প্ল্যান্টগুলো কেবল যে হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন সরবরাহ করবে তা নয়, অক্সিজেন সিলিন্ডারও আর ফাঁকা পড়ে থাকবে না। এর ফলে অনেক রোগীর প্রাণ বাঁচতে পারে।

এই উদ্যোগের পরদিন আবারও করোনা–সংশ্লিষ্ট সাহায্যের আবেদনে সাড়া দেন সোনু। ক্রিকেটার হরভজন সিংয়ের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন এই বলিউড অভিনেতা। কর্ণাটকের কোভিডে আক্রান্ত এক রোগীর জন্য এই মুহূর্তে জরুরি ওষুধের দরকার ছিল। সে কারণে টুইট করেছিলেন হরভজন। হরভজন টুইটারে লিখেছিলেন, ‘কর্ণাটকের বাসাপ্পা হাসপাতালে একজন রোগী ভর্তি আছেন। তাঁর চিকিৎসার জন্য রেমডেসিভির দরকার।’

ভারতের সাবেক অফ স্পিনারের টুইট ভাইরাল হতেই জবাব দিলেন সোনু সুদ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেই জানিয়ে দেন যে তিনি সাহায্যের জন্য একেবারেই তৈরি। সেই টুইট সবার সামনে আসতেই সোনু টুইটারে উত্তর দেন, ‘ব্যবস্থা হয়ে যাবে।’

সোনু সুদ কখনোই বলিউডের প্রথম সারির তারকা ছিলেন না। ছিলেন খলনায়ক। তাঁর চলচ্চিত্রজীবনের শুরুর দিকের অধ্যায় ভীষণ সংগ্রামের। ১৪ বছর নিজের পরিচয় গড়ে তোলার জন্য কঠিন পরিশ্রমের পরে পায়ের তলায় শক্ত মাটি পান তিনি। করোনাকালে হাজার হাজার মানুষের জীবনসংগ্রাম দেখে নিজের সেই অতীতের দিনগুলো আবার সোনুর স্মৃতিতে হানা দেয়। কোভিডের প্রথম ঢেউয়ে তিনি শ্রমিকদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। এবার দ্বিতীয় ঢেউয়ে নানা সংকট বেড়েছে ভারতে। এই সময়ে মানুষের প্রাণ বাঁচানোর অক্লান্ত চেষ্টা করে যাচ্ছেন সোনু। যার ফলে তাঁকে নিয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে সারা ভারতে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে শুরু করে ভারতের সংবাদমাধ্যম এবং তারকারাও সোনু সুদকে নিয়ে আলোচনা করছেন। সম্প্রতি বলিউড তারকা রাখি সাওয়ান্ত নতুন প্রস্তাব দিলেন সোনুর সামনে।

রাখির ইচ্ছা, পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য তিনি যেন নির্বাচনে লড়াই করেন। একটি ভিডিও বার্তায় দেখা যায়, রাখির প্রস্তাবে সোনু তাঁর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। সোনুর বাড়ির নিচে সাংবাদিকদের ভিড়। সবাইকে ঠান্ডা শরবত দিচ্ছেন এই অভিনেতা। বিভিন্ন প্রশ্ন রাখা হচ্ছে তাঁর সামনে। যার মধ্যে অন্যতম প্রশ্ন ছিল, তিনি কি আদৌ প্রধানমন্ত্রী হতে চান? প্রশ্নের জবাবে সোনু সরাসরি বলে দেন, ‘আমি সাধারণ মানুষ হয়েই ভালো আছি। প্রধানমন্ত্রী হতে চাই না। আমাদের ভাইয়েরা নির্বাচনে দাঁড়াচ্ছেন। ওটা আমার কাজ নয়।’ তাঁর এ জবাবও প্রশংসিত হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।