নন্দীগ্রামে সংঘর্ষ, আহত ১৩

35

বগুড়ার নন্দীগ্রামে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ১৩ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত দুই নারীসহ বেশ কয়েকজনকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

সোমবার দুপুরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ছোট ডেরাহার গ্রামে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে মঙ্গলবার থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।

আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করেছে। 

জানা যায়, ছোট ডেরাহার গ্রামের মৃত আহাম্মদ আলীর ছেলে আব্দুস সামাদের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী মৃত হারেজ আলীর ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদের বিরোধ চলছিল। এ বিরোধকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে। 
 
আহতরা হলেন- আব্দুস সামাদের পক্ষের মোজাফ্ফর (৪০), লাইলী বিবি (৪২), মনোয়ারা খাতুন (৩৫), ফাতেমা (৪৫), হাসেন আলী (৪৩), মনোয়ারা বিবি (৪৫), মিতু খাতুন (২৪), শরিফুল (২৮)।

এদের মধ্যে মোজাফ্ফর ও লাইলী বিবির অবস্থা গুরুতর। ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদের পক্ষের আহতরা হলেন- ফেনসি বিবি (৩৫), শাহীন (৩০), শাকিল (২২), ফেরদৌস (৩৮) ও শাহনাজ (৫০)। 

বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানার ওসি মো. কামরুল ইসলাম বলেন, সম্পত্তি নিয়ে আদালতে একটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। আব্দুস সামাদের আবেদনে সম্পত্তির ওপর আদালতের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

এর আগে অভিযোগ পেয়ে আব্দুর রশিদকে বাড়ি নির্মাণকাজ বন্ধ রাখতে বলেছি। ফের মারপিটের ঘটনায় উভয়পক্ষের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।