কুষ্টিয়ায় দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে তিনজনকে গুলি করে হত্যা

40

কুষ্টিয়ায় পুলিশের এএসআইয়ের গুলিতে স্ত্রী, সন্তান ও এক যুবক মারা গেছেন। রোববার (১৩ জুন) বেলা ১১টায় শহরের ৬নং ওয়ার্ডের কাস্টম মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরকীয়ার জেরেই এ হত্যাকাণ্ড ধারণা করলেও পুলিশ বলছে, তদন্ত করেই নেওয়া হবে আইনগত ব্যবস্থা।

ঘটনার পরপরই অভিযুক্ত সৌমেনকে আটক করা হয়েছে।

অভিযুক্ত সৌমেন মিত্র খুলনার ফুলতলা থানায় এএসআই হিসেবে কর্মরত আছেন।পুলিশ জানিয়েছে, কুষ্টিয়া শহরের কাস্টম মোড়ে বিকাশের দোকানে দাঁড়িয়ে ছিলেন বিকাশের এজেন্ট শাকিল। তার সঙ্গে ছিলেন পুলিশ সদস্য সৌমেন মিত্রের স্ত্রী আসমা ও তার শিশু সন্তান রবিন। এ সময় হঠাৎ সৌমেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ওই তিনজনকে গুলি করে।

স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তিনজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. তাপস কুমার তিনজনের মৃত্যুর বিষয়টি সময় নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।গুলি করে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় জনতা সৌমেন আটক করে। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে তাদের হেফাজতে নেয়।

পুলিশের ধারণা, পরকীয়ার জেরে এ হত্যাকাণ্ড।খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান।তিনি জানান, গুলির ঘটনা জানার পর আমরা এলাকায় আসি। তিনজনকে গুলি করা হয়েছে। অভিযুক্ত এএসআই সৌমেনকে আমরা আটক করেছি। তদন্ত সাপেক্ষে ঘটনার সঠিক তথ্য জানাতে পারব। আইনগত বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।