করোনা চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত খুলনা জেনারেল হাসপাতাল

80

খুলনা জেনারেল হাসপাতালকে ৭০ শয্যার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে রূপান্তর করা হয়েছে। রোববার থেকে করোনা রোগীদের ভর্তি শুরু হয়েছে। খুলনার সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে খুলনা বিভাগে গত এক সপ্তাহ ধরে শনাক্তের হার ৩৫ থেকে ৪০ শতাংশের মধ্যে ওঠানামা করছে। এর মধ্যে শনিবার রাতে ৩৮৭ জনের নমুনা পরীক্ষার মধ্যে শনাক্ত হয় ১৪৯ জন। শনাক্তের হার ছিল ৩৮ শতাংশ।

খুলনা সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ জানান, খুলনা জেনারেল হাসপাতালকে ৭০ শয্যার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে রূপান্তর করা হয়েছে। এখানে রোববার থেকে করোনা রোগীদের চিকিৎসা ও ভর্তির কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এর বাইরে বহি:বিভাগ ও জরুরি বিভাগে কোন চিকিৎসা প্রদান করা হবে না বলে তিনি উল্লেখ করেন।
 
খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ড. ফেরদৌসী আক্তার বলেন, সপ্তাহখানেক ধরে শনাক্তের হার ৩৫ থেকে ৪০ শতাংশের মধ্যে ওঠা-নামা করছে।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আরএমও ও করোনা হাসপাতালে ফোকালপার্সন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়ে এবং একজন উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। এছাড়া হাসপাতালে সকাল ৮টা পর্যন্ত ১৫৯ জন রোগী ভর্তি ছিলেন। যার মধ্যে রেডজোনে ৯৮ জন, ইয়ালোজোনে ২৫ জন, এইচডিইউতে ২০ জন এবং আইসিইউতে ১৮ জন চিকিৎসাধীন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ৫২ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৬ জন।
 
এদিকে শনিবার রাতে খুমেক পিসিআর ল্যাবের পরীক্ষায় ১৬৫ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে।

খুলনা মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ জানান, খুমেকের পিসিআর মেশিনে ৬১৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৬৫ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। যার মধ্যে খুলনার ৫০৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ১৪২ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া বাগেরহাটের ১১ জন, যশোরের ছয়জন, সাতক্ষীরার তিনজন, নড়াইলের একজন, গোপালগঞ্জের একজন এবং মেহেরপুরের একজন রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালনায় খুলনা ডেডিকেডেট করোনা হাসপাতালকে সম্প্রতি ১০০ বেড থেকে উন্নীত করে ১৩০ বেড করা হয়। একই সঙ্গে ২৫০ বেডের পুরো জেনারেল হাসপাতালকেই করোনা হাসপাতাল হিসেবে রূপান্তর করা হয়। তবে সেখানে করোনা রোগীদের জন্য প্রাথমিকভাবে ৭০ বেড প্রস্তুত করা হয়েছে।