ব্রাহ্মনবাড়িয়ার সংঘর্ষের খবর এখন মেসি-নেইমারদের কাছে

32

বাংলাদেশ কখনো হয়তো বিশ্বকাপে খেলতে পারবে না। তবে, এ দেশে ফুটবল নিয়ে উন্মাদনার মোটেও কমতি নেই। বিশ্বকাপ এলে তো এই উন্মাদনা মাত্রা ছাড়িয়ে যায়। তবে এবার কোপা আমেরিকায় ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনাকে সমর্থন করা নিয়েও সেই উন্মাদনা মাত্রা ছাড়ানোর ঘটনা ঘটেছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। চট্টগ্রামের একটি থানার পুলিশকে এ নিয়ে সতর্কবার্তা প্রচার করতে হয়েছে।

ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনার ফুটবল সমর্থকদের এমন পাগলামি এবং এ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ছড়িয়ে পড়েছে আন্তর্জাতিক মিডিয়ায়ও। যে কারণে ছোট্ট এই দেশটির ফুটবল উন্মাদনার খবর এখন পৌঁছে গেছে মেসি-নেইমারদের কানেও। বাংলাদেশে যতটা উন্মাদনা রয়েছে, খোদ ব্রাজিল-আর্জেন্টিনাতেও এ ধরনের উন্মাদনার প্রকাশ দেখা যায় না। 

ব্রাহ্মনবাড়িয়ায় ঘটে যাওয়া ঘটনা নিয়ে খবর প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপি। সংবাদ সংস্থাটিতে এই ঘটনা ও ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ফাইনাল নিয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েনের খবর প্রকাশের পর তা ছড়িয়ে পড়েছে পুরো বিশ্বে।

এএফপির সংবাদে বলা হয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম তাদের জানিয়েছেন, ‘ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার মধ্যে কোন দেশ ভালো খেলে, তা নিয়ে তর্কে হাতাহাতি হয় দুটি ছেলের মধ্যে। তাদের সাথে যোগ দেন আরও কিছু ভক্ত।’

কোপার ফাইনাল হবে ব্রাজিলের মারাকানা স্টেডিয়ামে। সেখান থেকে প্রায় ১৫ হাজার কিলোমিটার দূরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই দেশের এই ফাইনাল নিয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সদা সতর্ক রয়েছে বলে জানিয়েছেন সদর থানার এই ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। রোববার বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায় কোপা আমেরিকার ফাইনালে ব্রাজিলের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা।

এমরানুল ইসলাম এএফপিকে বলেন, ‘আমরা গ্রামবাসীকে বলেছি তারা বড় পর্দায় এ ম্যাচ দেখতে পারবেন না। ফাইনালের সময় গ্রামবাসীকে জমায়েত হয়ে খেলা দেখতে নিষেধ করা হয়েছে।’

এএফপি খবর প্রকাশের পর সেটাকে গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশ করেছে বুয়েন্স আয়ার্স টাইমস। আর্জেন্টিনার রাজধানী থেকে ইংরেজিতে প্রকাশিত এই পত্রিকার শিরোনাম ছিল, ‘বাংলদেশ অন এলার্ট ফর ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকা ক্লাশ।’ এএফপির উদ্বৃতি দিয়ে তারা যেভাবে খবর প্রকাশ করেছে, তা নিশ্চিত মেসি-নেইমারদের কানেও পৌঁছে গেছে।

ফ্রান্সের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদমাধ্যম ‘ফ্রান্স ২৪’-এর অনলাইন মাধ্যমেও এ খবর প্রকাশ করা হয়। মিসরের সংবাদমাধ্যম ‘আল-আরহাম’-এর অনলাইন সংস্করণেও এ খবর প্রকাশ করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের অনলাইন সংবাদমাধ্যম ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমসেও খবরটি প্রকাশ করা হয়।

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার ম্যাচ থাকলে কিংবা বিশ্বকাপে লাখো মানুষ পছন্দের দলের পতাকা ওড়ায়, রাস্তায় শোভাযাত্রাও বের করে।

গত বিশ্বকাপে ব্রাজিলের পতাকা ওড়াতে গিয়ে ১২ বছর বয়সী এক কিশোর বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়েও মারা যায়। এবার কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার পতাকা টাঙাতে গিয়েও গাইবান্ধায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক যুবকের মৃত্যু ঘটে।