বস্তিবাসীদের জমিসহ ঘর দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

225

কোনও বস্তিবাসী যদি নিজ গ্রামে ফিরতে চাইলে জমিসহ ঘর করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাদের কর্মসংস্থান ও আয়ের সুযোগ করে দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা জানান। 

অনুষ্ঠানে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় কর্তৃক বাস্তবায়িত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের জন্য ঢাকায় নির্মিত ২৪৭৪টি ফ্ল্যাট সংবলিত ৫টি আবাসন প্রকল্প, মাদারীপুরে নির্মিত সমন্বিত অফিস ভবন উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা। এ সময় বস্তিবাসীদের জন্য রাজধানীর মিরপুরে নির্মিত ভাড়াভিত্তিক ফ্ল্যাট হস্তান্তর অনুষ্ঠানেও ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দেন সরকার প্রধান।

তিনি বলেন, ‘জাতির পিতার বাংলাদেশে প্রত্যেকটি মানুষ সুন্দর ও উন্নত জীবন পাবে। জাতির পিতা বেঁচে থাকলে আরও আগেই তা পেত। তবে আমাদের দুর্ভাগ্য তাকে আমাদের কাছ থেকে কেড়ে নেয়ার ফলে সেটা পেলাম না। তবে আমরা তার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছি। জাতির পিতার এই দেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না। পিছিয়ে থাকবে না।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ঘরে ফেরা কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। কোনও বস্তিবাসী যদি নিজ গ্রামে ফিরতে চাইলে জমিসহ ঘর করে দেয়া হবে। তাদের কর্মসংস্থান ও আয়ের সুযোগ করে দেয়া হবে।’ রাজধানীতে বস্তিবাসীদের জন্য স্বল্প ভাড়ায় আরো ফ্ল্যাট নির্মাণ করার কথাও জানান তিনি। কৃষি জমি বাঁচানোই সরকারের মূল লক্ষ্য বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকার প্রধান বলেন, ‘পূর্বাচলে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আবাসন প্রকল্প নির্মাণে যাদের জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছিল এমন ১৪০০ পরিবারকে স্বল্পমূল্যে একটি করে ফ্ল্যাট দেয়া হবে।’

অনুষ্ঠানে রাজধানীর আজিমপুর, মতিঝিলসহ পাঁচটি আবাসন প্রকল্পের ২৪৭৪ টি ফ্ল্যাট, বস্তিবাসীদের জন্য মিরপুরে নির্মিত ভাড়াভিত্তিক ৩০০টি ফ্ল্যাট হস্তান্তর করেন।